মেনু নির্বাচন করুন
প্রকল্প

অন্যান্য প্রকল্প

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়। উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারের পাশাপাশি নাগরিকদের জীবনমান উন্নত করে।
বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় দেশের স্থলপথ ও সেতুপথ নির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণের পাশাপাশি সমগ্র দেশের পরিবহন ব্যবস্থাকে সুসংগঠিক করতে কাজ করে।
এ জন্য বিভিন্ন সময় বিশিষ্ট নাগরিকদের পরামর্শ ও আবেদন গ্রহণ করা হয়।
 বিশিষ্ট নাগরিকেরা মহাসড়ক বা কালভার্ট রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নে বিশেষ আবেদন করলে তার প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় থেকে গুরুত্বসহকারে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

সেবার সুবিধা:

    বিশিষ্ট নাগরিকের অনুরোধে সমস্যাটি দ্রুত আমলে নেওয়া হয়।
    গুরুত্বপূর্ণ নাগরিকের আবেদনের প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় তার সক্ষমতা অনুযায়ী কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

প্রক্রিয়া:

আবেদনের জন্য সম্মানিত নাগরিক একটি অনুরোধপত্র তৈরী করবেন। অনুরোধপত্রে মহাসড়ক বা কালভার্ট সংশ্লিষ্ট প্রয়োজনীয়তা, এলাকার বিবরণ, নাগরিকের ব্যক্তিগত তথ্যাদি সন্নিবেশিত থাকতে হবে।
আবেদনটি প্রধান প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর বরাবর লিখতে হবে। বিশিষ্ট নাগরিকের নিকট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধত্র পাওয়ার পর গুরুত্ব বিবেচনা করে মন্ত্রণালয় থেকে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
পরবর্তীতে মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত আবেদনকারীকে পত্রের মাধ্যমে জানানো হবে।

ফাইল বাংলা

1175788cf6643edd822a9b20add09502.pdf 1175788cf6643edd822a9b20add09502.pdf


ফাইল ইংরেজী


কাজের বর্ননা

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়। উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারের পাশাপাশি নাগরিকদের জীবনমান উন্নত করে।
বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় দেশের স্থলপথ ও সেতুপথ নির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণের পাশাপাশি সমগ্র দেশের পরিবহন ব্যবস্থাকে সুসংগঠিক করতে কাজ করে।
এ জন্য বিভিন্ন সময় বিশিষ্ট নাগরিকদের পরামর্শ ও আবেদন গ্রহণ করা হয়।
 বিশিষ্ট নাগরিকেরা মহাসড়ক বা কালভার্ট রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নে বিশেষ আবেদন করলে তার প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় থেকে গুরুত্বসহকারে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

সেবার সুবিধা:

    বিশিষ্ট নাগরিকের অনুরোধে সমস্যাটি দ্রুত আমলে নেওয়া হয়।
    গুরুত্বপূর্ণ নাগরিকের আবেদনের প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় তার সক্ষমতা অনুযায়ী কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

প্রক্রিয়া:

আবেদনের জন্য সম্মানিত নাগরিক একটি অনুরোধপত্র তৈরী করবেন। অনুরোধপত্রে মহাসড়ক বা কালভার্ট সংশ্লিষ্ট প্রয়োজনীয়তা, এলাকার বিবরণ, নাগরিকের ব্যক্তিগত তথ্যাদি সন্নিবেশিত থাকতে হবে।
আবেদনটি প্রধান প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর বরাবর লিখতে হবে। বিশিষ্ট নাগরিকের নিকট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধত্র পাওয়ার পর গুরুত্ব বিবেচনা করে মন্ত্রণালয় থেকে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
পরবর্তীতে মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত আবেদনকারীকে পত্রের মাধ্যমে জানানো হবে।

বরাদ্দের পরিমাণ (টাকায়)

20000

বরাদ্দের পরিমাণ (অন্যান্য)

20000

প্রকল্প শুরু

২০১৮-০২-০১

প্রকল্প শেষ

২০১৮-০৯-২৯

ওয়ার্ড

2

অগ্রগতির হার

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়। উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারের পাশাপাশি নাগরিকদের জীবনমান উন্নত করে।
বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় দেশের স্থলপথ ও সেতুপথ নির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণের পাশাপাশি সমগ্র দেশের পরিবহন ব্যবস্থাকে সুসংগঠিক করতে কাজ করে।
এ জন্য বিভিন্ন সময় বিশিষ্ট নাগরিকদের পরামর্শ ও আবেদন গ্রহণ করা হয়।
 বিশিষ্ট নাগরিকেরা মহাসড়ক বা কালভার্ট রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নে বিশেষ আবেদন করলে তার প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় থেকে গুরুত্বসহকারে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

সেবার সুবিধা:

    বিশিষ্ট নাগরিকের অনুরোধে সমস্যাটি দ্রুত আমলে নেওয়া হয়।
    গুরুত্বপূর্ণ নাগরিকের আবেদনের প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় তার সক্ষমতা অনুযায়ী কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

প্রক্রিয়া:

আবেদনের জন্য সম্মানিত নাগরিক একটি অনুরোধপত্র তৈরী করবেন। অনুরোধপত্রে মহাসড়ক বা কালভার্ট সংশ্লিষ্ট প্রয়োজনীয়তা, এলাকার বিবরণ, নাগরিকের ব্যক্তিগত তথ্যাদি সন্নিবেশিত থাকতে হবে।
আবেদনটি প্রধান প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর বরাবর লিখতে হবে। বিশিষ্ট নাগরিকের নিকট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধত্র পাওয়ার পর গুরুত্ব বিবেচনা করে মন্ত্রণালয় থেকে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
পরবর্তীতে মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত আবেদনকারীকে পত্রের মাধ্যমে জানানো হবে।

সর্বশেষ হালনাগাদের তারিখ

২০১৮-০৭-১৪

প্রকল্পের স্ট্যাটাস

বাস্তবায়নাধীন

প্রকল্পের নাম

অন্যান্য


Share with :

Facebook Twitter